সাধারণ মানুষ বনাম ডিজিটাল মানুষ

সাধারণ মানুষ, ডিজিটাল মানুষ, আত্বহত্যা

সাধারণ মানুষ বনাম ডিজিটাল মানুষ
সাধারণ মানুষ বনাম ডিজিটাল মানুষ

“মানুষ” নামক জাতির আজ অনেক উন্নতি সাধিত হয়েছে। ডিজিটালের ছোয়ায় আমরা মানুষত্বের বাহিরে এসে রোবটের মূল্যের মত জীবন যাপন করছি। আমাদের জীবনের মূল্য এখন একটি রোবটের মূল্যের মত হয়ে গেছে।

সোসিয়াল মিডিয়ার মধ্যে আমরা একটা জীবন চক্র তৈরি করেছি ।
জন্ম হবার পর বাবা প্রথম কোলে তুলে সন্তানের ছবি তুলবে… এর পর সেটি সোসিয়্যাল মাধ্যমে ছাড়িয়ে দেওয়া হবে,…এরপর প্রথম স্কুলে যাবার ছবিটাও বাবা অথবা মা সোসিয়্যাল মাধ্যমে ছড়িয়ে দেবে….. এরপর কলেজ, ভার্সিটি তারপর কর্মজীবন সবকিছুরই আপডেট ছড়াতে থাকবে এখানে ।
অতপর অনেকে হয়ত এই সোসিয়াল মিডিয়ার মাধ্যমেই রোমান্টিক জীবনের সন্ধান পাবে ।
পাওয়া আর না পাওয়ার মাঝেই সেই রোমান্টিক দিনগুলোও একদিন অতিত হয়ে যাবে।
অতপর কি আর করা….সব হারিয়ে নিজের জীবনটা বিভৎস মনে হবে। নিজের কাছে নিজের মূল্য সর্বনিম্নস্তরে চলে অাসবে। পৃথিবীর সবকিছুর প্রতি ঘৃর্ণার সৃষ্টি হবে ।
সর্বশেষ সেই কঠিন সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এসে যাবে…..
মজার ব্যপার হলো… জীবনের শেষ বিদায়ের প্রস্তুতির সময় মনে হবে.. আমার হারিয়ে যাবার আগের শোকাহত মহুর্তগুলো তাকে দেখিয়ে যাব.. যার জন্য আজ আমার অকালে চলে যেতে হচ্ছে । এরপর সেই মহুর্তগুলো দেওয়া হবে সোসিয়্যাল মিডিয়াতে ।
মানুষ নামক রোবর্টগুলির জীবনের গল্প এভাবেই শেষ হবে।